শিরোনাম
আইডিইবি ইন্ডাস্ট্রিয়াল এন্ড এন্টারপ্রেনার্স ডেভেলপমেন্ট এসোসিয়েশন এর কমিটি গঠন ডিজিটাল বাংলাদেশের পরবর্তী ধাপ ক্যাশলেস সোসাইটি : জয় এসএমই ফাউন্ডেশনের ১০০’ কোটি টাকা ঋণের ৩৩ শতাংশ পেয়েছেন নারী উদ্যোক্তারা নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জের আঁতাতকরী বিএনপি নেতা নাসিরকে গনধোলাই দিলো কর্মীরা প্রধানমন্ত্রীর প্রণোদনা নিয়ে স্বজনপ্রীতি সহ্য করা হবে না : ওবায়দুল কাদের করোনায় ক্ষতিগ্রস্তদের সহায়তায় ৩২০০ কোটি টাকার নতুন প্রণোদনা প্যাকেজের ঘোষণা প্রধানমন্ত্রীর নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জের হাসেম ফুড পরিদর্শনে এসে বিএনপির দুই গ্রুপের সংঘর্ষ, পুলিশের লাঠিচার্জ চলমান লকডাউন শিথিল, ২৩ জুলাই থেকে ৫ আগস্ট পর্যন্ত কঠোর বিধি-নিষেধের প্রজ্ঞাপন জারি রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে জাতিসংঘে প্রস্তাব গৃহীত করোনা রোগীর চাপে চট্টগ্রাম মেডিকেলে সাধারণ রোগী ভর্তি বন্ধ করে দিয়েছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ
শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৪:৫০ অপরাহ্ন

কমিটি বানিজ্যে ছন্নছাড়া তৃণমূল, বিক্ষোভ মিছিল পণ্ড

মো. মুন্তাসিরুল হক, ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি
আপডেট মঙ্গলবার, ৯ মার্চ, ২০২১

নবগঠিত উপজেলা বিএনপির আহবায়ক কমিটি বাতিলের দাবিতে আখাউড়ায় সংবাদ সম্মেলনের পর বিক্ষোভ মিছিল করতে গেলে পুলিশি বাধায় তা পন্ড হয়।

আজ মঙ্গলবার সকাল ১১টায় আখাউড়া উপজেলা বিএনপির সদ্যঘোষিত আহবায়ক কমিটি বাতিলের দাবিতে স্থানীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে বিএনপির একাংশ। এ সময় উপজেলা বিএনপির সাবেক সিনিয়র সহ সভাপতি সাংবাদিক নেতা ইউসুফ সারোয়ার, সাবেক সাধারণ সম্পাদক আবুল মনসুর মিশন, খন্দকার বিল্লাল, মোঃ বাহার মিয়া সহ আরো অনেকে উপস্থিত ছিলেন। সংবাদ সম্মেলনের পর তারা আব্দুর রহমান সানি, কবির আহমেদ ভূঁইয়া এবং জিল্লুর রহমানের কমিটি বানিজ্যের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ মিছিল বের করে। কিছুক্ষণ পর পুলিশ এসে তাদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়।

বিএনপি’র সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যানের ব্যক্তিগত স্টাফ আব্দুর রহমান সানি, তার অগ্রজ কবির আহমেদ ভূঁইয়া এবং জেলা বিএনপির আহবায়ক জিল্লুর রহমানের বিরুদ্ধে কমিটি দেয়া নিয়ে অর্থ বানিজ্যের অভিযোগ এবারই নতুন নয়। এর আগেও জেলার বিভিন্ন উপজেলায় নবগঠিত কমিটির অনুমোদন নিয়ে তৃণমূল থেকে হাই কমান্ড পর্যন্ত অনেক নেতাকর্মীদের মধ্যে এ নিয়ে তীব্র অসন্তোষ ও ক্ষোভ দেখা দিয়েছে।

কথিত আছে, অর্থের বিনিময়ে রাজনীতির মাঠে বিভিন্ন আনকোরা মুখের অভ্যুদয় ঘটাচ্ছেন জিল্লুর রহমান যার বদৌলতে অর্থের মারপ্যাঁচে মেঘে ঢাকা তারার মতোই আড়ালে পড়ে অবমূল্যায়িত হচ্ছেন দলটির অনেক ত্যাগী ও দুঃসময়ের কাণ্ডারিরা। এমতাবস্থায় অনেকটাই কোনঠাসা অবস্থানে রয়েছে জেলা বিএনপির নেতৃবৃন্দ। নিজের স্বেচ্ছাচারিতা ও পছন্দের জেরে নিয়ম নীতির তোয়াক্কা না করেই তার কমিটি অনুমোদনের কথা বলছেন অনেকে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কসবা বিএনপির সিনিয়র এক নেতা জানান, ” গত ৭ ফেব্রুয়ারি কমিটি দেয়াকে কেন্দ্র করে রাজধানীর একটি হোটেলে ৫ লক্ষাধিক টাকা লেনদেন হয়েছে।” এদিকে বাঞ্ছারামপুরের এক নেতা নিজের পছন্দের কমিটি বগলদাবা করতে আহবায়ককে আট হাজার টাকা দামের জুতা উপহার দেয়ার খবর বাতাসে ভেসে বেড়াচ্ছে ।

এর আগে সরাইল উপজেলা বিএনপি’র অনুমোদিত কমিটি নিয়ে অসন্তোষের জেরে গত ১ মার্চ (সোমবার) সাবেক সহ-সভাপতি মো. আক্তার হোসেন ও সাবেক সম্পাদক মো. আনোয়ার হোসেনের নেতৃত্বে সকালে মাঠে নামে বিএনপি’র একাংশের বিক্ষুদ্ধ নেতা কর্মীরা। এ সময় তারা জিল্লুর গলায় জুতার ছবি সম্বলিত ব্যানার ও ফেষ্টুন ব্যবহার করে বিক্ষোভ প্রদর্শন করে। জোর গুঞ্জন রয়েছে, ১/১১’র সময় ও তার পরবর্তীতে দল ভেঙ্গে যারা বিএনএফ নামক সংস্কারপন্থী একটি নতুন রাজনৈতিক দল গঠন করতে চেয়েছিলেন জিল্লুর রহমান ছিলেন সেই সারির অগ্রভাগের সৈনিক।

জেলা বিএনপির সাবেক দায়িত্বশীল কয়েকজন নেতা নিজেদের নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানিয়েছেন, “জেলা আহ্বায়ক জিল্লুর রহমান সম্মুখভাগে এসবের নেতৃত্ব দিলেও পেছন থেকে মাষ্টারমাইণ্ড হয়ে কলকাঠি নাড়ছেন পালের গোঁদা কবির আহমেদ ভূঁইয়া যিনি তারেক রহমানের ব্যক্তিগত স্টাফ আব্দুর রহমান সানির বড় ভাই। তার ছত্রছায়ায় ও প্রশ্রয়ে বর্তমান আহবায়ক করে যাচ্ছেন একের পর এক কমিটি ব্যাণিজ্য। তারা দুঃসময়ে দলকে নিয়ে সার্কাসে মেতেছেন । ব্রাহ্মণবাড়িয়া বিএনপি রাজনীতির এখন কবিরের হাতের মুঠোয়।”

উল্লেখ্য, গত বছরের ১৩ নভেম্বর বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল’র (বিএনপি) সাংগঠনিক সম্পাদক ও বিএনপির কেন্দ্রীয় দপ্তরের চলতি দায়িত্বে থাকা সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স স্বাক্ষরিত প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জেলা বিএনপির সাবেক সহ-সভাপতি জিল্লুর রহমান জিল্লুকে আহবায়ক এবং ৩০জনকে সদস্য করে মোট ৩১ সদস্য বিশিষ্ট আহবায়ক কমিটির অনুমোদন দেওয়া হয়।

এর পর ওই বছরের ৩০ নভেম্বর নবনির্বাচিত আহবায়ক মো:জিল্লুর রহমান স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে উপজেলা ও পৌর বিএনপির সকল কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করা হয়। শিগগিরই উপজেলা ও পৌরসভার সংশ্লিষ্ট নেতাদের সঙ্গে আলোচনা করে নতুন কমিটি গঠন করা হবে বলে ওই প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছিলো।  কিন্তু শুরু থেকে তার নেতৃত্বাধীন কমিটির সাংগঠনিক তৎপরতা ও লাগামহীন অসামঞ্জস্যতা একের পর এক বিতর্কের জন্ম দিয়েই যাচ্ছে।


এই বিভাগের আরো খবর
greengrocers

Categories

Archives