গতকালের চেয়ে আজ ১ জন বেশি মৃত্যুবরণ করেছেন। গতকাল ৭৭ জন মৃত্যুবরণ করেছিলেন। এখন পর্যন্ত দেশে করোনা মহামারিতে মৃত্যুবরণ করেছেন ৯ হাজার ৭৩৯ জন। করোনা শনাক্তের বিবেচনায় আজ মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৪২ শতাংশ। গত ৯ এপ্রিল থেকে মৃত্যুর একই হার বিদ্যমান ছিল।

আজ স্বাস্থ্য অধিদফতরের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।
বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, গত ২৪ ঘন্টায় ২৯ হাজার ৩৭৬ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৫ হাজার ৮১৯ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়েছে। গতকালের চেয়ে আজ ৪৭৬ জন বেশি আক্রান্ত হয়েছেন। গতকাল ২৬ হাজার ৭৭ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৫ হাজার ৩৪৩ জনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছিল।
দেশে গত ২৪ ঘন্টায় নমুনা পরীক্ষার বিবেচনায় শনাক্তের হার ১৯ দশমিক ৮১ শতাংশ। আগের দিন এই হার ছিল ২০ দশমিক ৪৯ শতাংশ। গতকালের চেয়ে আজ শনাক্তের হার দশমিক ৬৪ শতাংশ কম।

স্বাস্থ্য অধিদফতর জানায়, দেশে এ পর্যন্ত মোট ৫০ লাখ ২ হাজার ৮৬৫ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৬ লাখ ৮৪ হাজার ৭৫৬ জনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। মোট পরীক্ষার ৩৭ লাখ ৩৯ হাজার ১৫৫টি হয়েছে সরকারি এবং ১২ লাখ ৬৩ হাজার ৭১০টি হয়েছে বেসরকারি ব্যবস্থাপনায়। মোট পরীক্ষার বিবেচনায় শনাক্তের হার ১৩ দশমিক ৬৯ শতাংশ। গতকাল পর্যন্ত এই হার ছিল ১৩ দশমিক ৬৫ শতাংশ।

করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের মধ্যে গত ২৪ ঘন্টায় হাসপাতাল এবং বাসায় মিলিয়ে সুস্থ হয়েছেন ৪ হাজার ২১২ জন। গতকাল সুস্থ হয়েছিলেন ৩ হাজার ৮৩৭ জন। গতকালের চেয়ে আজ ৩৭৫ জন বেশি সুস্থ হয়েছেন। দেশে এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ৫ লাখ ৭৬ হাজার ৫৯০ জন।

আজ শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৮৪ দশমিক ২০ শতাংশ। গতকাল এই হার ছিল ৮৪ দশমিক ৩০ শতাংশ। গতকালের চেয়ে আজ সুস্থতার হার দশমিক ১ শতাংশ কম।

বিজ্ঞপ্তিতে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানায়, করোনাভাইরাস শনাক্তে গত ২৪ ঘন্টায় নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ২৯ হাজার ২৯৮ জনের। আগের দিন নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছিল ২৫ হাজার ১৮৫ জনের। গতকালের চেয়ে আজ ৪ হাজার ১১৩টি নমুনা বেশি সংগ্রহ করা হয়েছে। গত ২৪ ঘন্টায় দেশের সরকারি ১৭৭টি ও বেসরকারি ৭১টিসহ ২৪৮টি পরীক্ষাগারে (এন্টিজেন টেস্টসহ) নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ২৯ হাজার ৩৭৬ জনের। আগের দিন নমুনা পরীক্ষা হয়েছিল ২৬ হাজার ৭৭ জনের। গতকালের চেয়ে আজ ৩ হাজার ২৯৯টি নমুনা বেশি পরীক্ষা করা হয়েছে।