শিরোনাম
আইডিইবি ইন্ডাস্ট্রিয়াল এন্ড এন্টারপ্রেনার্স ডেভেলপমেন্ট এসোসিয়েশন এর কমিটি গঠন ডিজিটাল বাংলাদেশের পরবর্তী ধাপ ক্যাশলেস সোসাইটি : জয় এসএমই ফাউন্ডেশনের ১০০’ কোটি টাকা ঋণের ৩৩ শতাংশ পেয়েছেন নারী উদ্যোক্তারা নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জের আঁতাতকরী বিএনপি নেতা নাসিরকে গনধোলাই দিলো কর্মীরা প্রধানমন্ত্রীর প্রণোদনা নিয়ে স্বজনপ্রীতি সহ্য করা হবে না : ওবায়দুল কাদের করোনায় ক্ষতিগ্রস্তদের সহায়তায় ৩২০০ কোটি টাকার নতুন প্রণোদনা প্যাকেজের ঘোষণা প্রধানমন্ত্রীর নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জের হাসেম ফুড পরিদর্শনে এসে বিএনপির দুই গ্রুপের সংঘর্ষ, পুলিশের লাঠিচার্জ চলমান লকডাউন শিথিল, ২৩ জুলাই থেকে ৫ আগস্ট পর্যন্ত কঠোর বিধি-নিষেধের প্রজ্ঞাপন জারি রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে জাতিসংঘে প্রস্তাব গৃহীত করোনা রোগীর চাপে চট্টগ্রাম মেডিকেলে সাধারণ রোগী ভর্তি বন্ধ করে দিয়েছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ
শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৩:৩৩ অপরাহ্ন

চট্টগ্রামে করোনার নতুন বাহক ৬৮ জন

জেলা প্রতিনিধি ,পিআরবি নিউজ
আপডেট মঙ্গলবার, ২৬ জানুয়ারী, ২০২১

চট্টগ্রামে নতুন ৬৮ জনের দেহে করোনার সংক্রমণ ধরা পড়েছে। সংক্রমণের হার ৪ দশমিক ২০ শতাংশ। এ সময়ে কারো মৃত্যু হয়নি।

সিভিল সার্জন কার্যালয়ের রিপোর্টে বলা হয়, নগরীর আটটি ও কক্সবাজার মেডিক্যাল কলেজ ল্যাবে গতকাল সোমবার চট্টগ্রামের ১ হাজার ৬১৭ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়। নতুন শনাক্ত ৬৮ জনের মধ্যে শহরের বাসিন্দা ৫৮ জন ও পাঁচ উপজেলার ১০ জন। এর মধ্যে হাটহাজারীতে ৫ জন, পটিয়ায় ২ জন এবং ফটিকছড়ি, সীতাকু- ও আনোয়ারায় একজন করে রয়েছেন। জেলায় করোনাভাইরাসে মোট শনাক্ত ব্যক্তির সংখ্যা এখন ৩২ হাজার ৭৩৮ জন। এর মধ্যে যাতে শহরের বাসিন্দা ২৫ হাজার ৫৪৬ জন ও গ্রামের ৭ হাজার ১৯২ জন।
গতকাল করোনায় কোনো রোগী মারা যাননি। মৃতের সংখ্যা ৩৬৯ জনই রয়েছে। এতে শহরের ২৬৮ জন ও গ্রামের ১০১ জন। সুস্থতার ছাড়পত্র পেয়েছেন নতুন ৩৬ জন। ফলে মোট আরোগ্য লাভকারীর সংখ্যা ৩০ হাজার ৫৪৬ জনে উন্নীত হয়েছে। এর মধ্যে হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন ৪ হাজার ১৫১ জন এবং হোম আইসোলেশনে থেকে ২৬ হাজার ৩৯৫ জন। হোম কোয়ারেন্টাইন বা আইসোলেশনে গতকাল যুক্ত হন ১০ জন, ছাড় পত্র নেন ১০ জন। বর্তমানে কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন ১ হাজার ৩৫৯ জন।
ল্যাবভিত্তিক রিপোর্টে দেখা যায়, ফৌজদারহাটস্থ বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ট্রপিক্যাল এন্ড ইনফেকশাস ডিজিজেস (বিআইটিআইডি) ল্যাবে ৮৫৪টি নমুনা পরীক্ষা করে ১০ জন জীবাণুবাহক পাওয়া যায়। সংক্রমণ হার ১ দশমিক ১৭ শতাংশ। চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ (চমেক) ল্যাবে ৪৬৭টি নমুনার মধ্যে ১০টিতে ভাইরাসের অস্তিত্ব মিলে। সংক্রমণ হার ২ দশমিক ১৪ শতাংশ। চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ল্যাবে ৮৪ জনের নমুনায় ১৬ জনকে পজিটিভ বলে শনাক্ত করা হয়। সংক্রমণ হার ১৯ দশমিক ০৫ শতাংশ। চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি এন্ড এনিম্যাল সায়েন্সেস বিশ্ববিদ্যালয় (সিভাসু) ল্যাবে ২৮টি নমুনার ৫টিতে ভাইরাস থাকার প্রমাণ মিলে। সংক্রমণ হার ১৭ দশমিক ৮৬ শতাংশ। জেনারেল হাসপাতালের রিজিওনাল টিবি রেফারেল ল্যাবরেটরিতে (আরটিআরএল) ৮ জনের নমুনায় ৬ জনই পজিটিভ হিসেবে চিহ্নিত হন। সংক্রমণ হার ৭৫ শতাংশ।
বেসরকারি ক্লিনিক্যাল ল্যাবরেটরি ইম্পেরিয়াল হাসপাতাল ল্যাবে ৭২টি নমুনা পরীক্ষা করে ১০টি, শেভরনে ৭১টি নমুনার মধ্যে ৭টি এবং চট্টগ্রাম মা ও শিশু হাসপাতাল ল্যাবে ১৬টি নমুনায় ৪টিতে করোনার জীবাণু পাওয়া যায়। সংক্রমণ হার যথাক্রমে ১৩ দশমিক ৮৯,ও ৯ দশমিক ৮৬ এবং ২৫ শতাংশ নির্ণিত হয়।
কক্সবাজার মেডিক্যাল কলেজ ল্যাবে এদিন চট্টগ্রামের ১৭ জনের নমুনা পাঠানো হয়। পরীক্ষায় সবগুলোরই রেজাল্ট নেগেটিভ আসে।


এই বিভাগের আরো খবর
greengrocers

Categories

Archives