শিরোনাম
আইডিইবি ইন্ডাস্ট্রিয়াল এন্ড এন্টারপ্রেনার্স ডেভেলপমেন্ট এসোসিয়েশন এর কমিটি গঠন ডিজিটাল বাংলাদেশের পরবর্তী ধাপ ক্যাশলেস সোসাইটি : জয় এসএমই ফাউন্ডেশনের ১০০’ কোটি টাকা ঋণের ৩৩ শতাংশ পেয়েছেন নারী উদ্যোক্তারা নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জের আঁতাতকরী বিএনপি নেতা নাসিরকে গনধোলাই দিলো কর্মীরা প্রধানমন্ত্রীর প্রণোদনা নিয়ে স্বজনপ্রীতি সহ্য করা হবে না : ওবায়দুল কাদের করোনায় ক্ষতিগ্রস্তদের সহায়তায় ৩২০০ কোটি টাকার নতুন প্রণোদনা প্যাকেজের ঘোষণা প্রধানমন্ত্রীর নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জের হাসেম ফুড পরিদর্শনে এসে বিএনপির দুই গ্রুপের সংঘর্ষ, পুলিশের লাঠিচার্জ চলমান লকডাউন শিথিল, ২৩ জুলাই থেকে ৫ আগস্ট পর্যন্ত কঠোর বিধি-নিষেধের প্রজ্ঞাপন জারি রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে জাতিসংঘে প্রস্তাব গৃহীত করোনা রোগীর চাপে চট্টগ্রাম মেডিকেলে সাধারণ রোগী ভর্তি বন্ধ করে দিয়েছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ
শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৪:৪২ অপরাহ্ন

তিন বিচারককে সরিয়ে দেয়ার চেষ্টা হাইতি প্রেসিডেন্টের

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক
আপডেট বুধবার, ১০ ফেব্রুয়ারী, ২০২১

হাইতির প্রেসিডেন্ট জোভিনিল ময়জি মঙ্গলবার সেদেশের তিন বিচারককে সরিয়ে দেয়ার চেষ্টা করেছেন। প্রেসিডেন্টকে ক্ষমতাচ্যুত করে এই তিন বিচারককে অন্তবর্তী জাতীয় নেতা বানানোর প্রস্তাব দেয়া হয়েছিল। এ প্রেক্ষাপটে প্রেসিডেন্ট তাদের সরানোর এ চেষ্টা করেন।

প্রেসিডেন্ট বলছেন, তার ক্ষমতার মেয়াদ ২০২২ সালের ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। কিন্তু বিরোধীদের দাবি গত সপ্তাহন্তেই তার ক্ষমতার মেয়াদ শেষ হয়ে গেছে। এর আগে রোববার ময়জি’র অনুগত কর্মকর্তারা একটি অভ্যুত্থান প্রচেষ্টা ব্যর্থ করার দাবি করেছেন।
হাইতির অফিশিয়াল জার্নালের রাত্রিকালীন বিশেষ সংস্করণে ঘোষণা করা হয়েছে, ইউভিকেল দিওজাস্তে, ওয়েনডেল কক থেলট এবং জোসেফ মেসিনি জ্যাঁ লুইস আপীল বিভাগের এই তিন বিচারক এখন অবসরপ্রাপ্ত। তবে এই ডিক্রি দেশেটির সংবিধান ও আইনের সাথে সাংর্ঘষিক বলে মনে করা হচ্ছে। এদিকে চলতি সপ্তাহের প্রথম দিকে জ্যাঁ লুইস অন্তবর্তী সরকারের প্রস্তাব গ্রহণ করার কথা জানিয়েছিলেন।

যুক্তরাষ্ট্র এখনও ময়জি’র অবস্থানকে সমর্থন দিয়ে আসছে। ময়জি তার ক্ষমতা পাকাপোক্ত করতে পেরেছেন বলেও মনে করা হচ্ছে। তবে পোর্ট-অ-প্রিন্স মার্কিন দূতাবাস এক টুইটার বার্তায় হাইতির গণতান্ত্রিক প্রতিষ্ঠানগুলোকে ক্ষতিগ্রস্ত করার ঝুঁকিপূর্ণ যে কোন পদক্ষেপে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে। দূতাবাসের এক বিবৃতিতে বলা হয়, হাইতির আইন ও সংবিধান অনুযায়ী এই নির্বাহী আদেশ হয়েছে কিনা তা এখন ব্যাপকভাবে খতিয়ে দেখতে হবে।


এই বিভাগের আরো খবর
greengrocers

Categories

Archives