শিরোনাম
আইডিইবি ইন্ডাস্ট্রিয়াল এন্ড এন্টারপ্রেনার্স ডেভেলপমেন্ট এসোসিয়েশন এর কমিটি গঠন ডিজিটাল বাংলাদেশের পরবর্তী ধাপ ক্যাশলেস সোসাইটি : জয় এসএমই ফাউন্ডেশনের ১০০’ কোটি টাকা ঋণের ৩৩ শতাংশ পেয়েছেন নারী উদ্যোক্তারা নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জের আঁতাতকরী বিএনপি নেতা নাসিরকে গনধোলাই দিলো কর্মীরা প্রধানমন্ত্রীর প্রণোদনা নিয়ে স্বজনপ্রীতি সহ্য করা হবে না : ওবায়দুল কাদের করোনায় ক্ষতিগ্রস্তদের সহায়তায় ৩২০০ কোটি টাকার নতুন প্রণোদনা প্যাকেজের ঘোষণা প্রধানমন্ত্রীর নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জের হাসেম ফুড পরিদর্শনে এসে বিএনপির দুই গ্রুপের সংঘর্ষ, পুলিশের লাঠিচার্জ চলমান লকডাউন শিথিল, ২৩ জুলাই থেকে ৫ আগস্ট পর্যন্ত কঠোর বিধি-নিষেধের প্রজ্ঞাপন জারি রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে জাতিসংঘে প্রস্তাব গৃহীত করোনা রোগীর চাপে চট্টগ্রাম মেডিকেলে সাধারণ রোগী ভর্তি বন্ধ করে দিয়েছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ
শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৪:১৫ অপরাহ্ন

মিয়ানমারের সামরিক অভ্যুত্থান ব্যর্থ করতে চায় জাতিসংঘ

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক
আপডেট বৃহস্পতিবার, ৪ ফেব্রুয়ারী, ২০২১

জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেস বুধবার বলেছেন, মিয়ানমারের ওপর চাপ প্রয়োগে এবং ‘এই সামরিক অভ্যুত্থান ব্যর্থ করা নিশ্চিত করতে’ তিনি তার ক্ষমতার সবকিছু করবেন। খবর এএফপি’র।

গত সোমবার ভোরের দিকে একের পর এক অভিযান চালিয়ে মায়ানমারের কার্যত নেত্রী অং সান সু চি এবং অন্যান্য সেবামরিক নেতাকে সৈন্যরা আটক করায় দেশটি আবারো সরাসরি সামরিক শাসনের অধীনে চলে যায়। আর এর মধ্য দিয়ে মায়ানমারের গণতন্ত্রের সংক্ষিপ্ত অভিজ্ঞতার অবসান ঘটে। ওয়াশিংটন পোস্টের সাথে আলাপকালে গুতেরেস বলেন, ‘এই সেনা অভ্যুত্থান ব্যর্থ করতে মায়ানমারের ওপর কঠোর চাপ প্রয়োগের জন্য আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে ঐক্যবদ্ধ করতে আমরা সবকিছু করবো।’

গুতেরেস বলেন, মায়ানমারে ‘নির্বাচনের পর একটি স্বাভাবিক অবস্থা বিরাজ করছিল বলে আমি মনে করি। এমন অবস্থায় নির্বাচনের ফল উল্টে দেয়া, জনগণের ইচ্ছার বিরুদ্ধে যাওয়া খুবই অগ্রহণযোগ্য। তিনি আরো বলেন, দেশটির সেনাবাহিনীকে বোঝাতে হবে যে এটা দেশ শাসনের উপায় না। এভাবে সামনে এগিয়ে যাওয়া যায় না। তিনি বলেন, ‘মিয়ানমারে গণতন্ত্রকে আবারো এগিয়ে নিতে হলে সকল বন্দিকে অবশ্যই মুক্তি দিতে এবং সাংবিধানিক নির্দেশ অবশ্যই পুন:প্রতিষ্ঠা করতে হবে বলে আমি আশা করি।’ জাতিসংঘ মহাসচিব দুঃখ করে বলেন, ব্রিটেনের উদ্যোগে জরুরি বৈঠকের পর নিরাপত্তা পরিষদ চীন ও রাশিয়ার কারণে মিয়ানমারের সামরিক অভ্যুত্থানের ব্যাপারে একটি ঐক্যবদ্ধ বিবৃতি দেয়ার বিষয়ে সম্মত হতে ব্যর্থ হয়েছে।


এই বিভাগের আরো খবর
greengrocers

Categories

Archives