শিরোনাম
আইডিইবি ইন্ডাস্ট্রিয়াল এন্ড এন্টারপ্রেনার্স ডেভেলপমেন্ট এসোসিয়েশন এর কমিটি গঠন ডিজিটাল বাংলাদেশের পরবর্তী ধাপ ক্যাশলেস সোসাইটি : জয় এসএমই ফাউন্ডেশনের ১০০’ কোটি টাকা ঋণের ৩৩ শতাংশ পেয়েছেন নারী উদ্যোক্তারা নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জের আঁতাতকরী বিএনপি নেতা নাসিরকে গনধোলাই দিলো কর্মীরা প্রধানমন্ত্রীর প্রণোদনা নিয়ে স্বজনপ্রীতি সহ্য করা হবে না : ওবায়দুল কাদের করোনায় ক্ষতিগ্রস্তদের সহায়তায় ৩২০০ কোটি টাকার নতুন প্রণোদনা প্যাকেজের ঘোষণা প্রধানমন্ত্রীর নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জের হাসেম ফুড পরিদর্শনে এসে বিএনপির দুই গ্রুপের সংঘর্ষ, পুলিশের লাঠিচার্জ চলমান লকডাউন শিথিল, ২৩ জুলাই থেকে ৫ আগস্ট পর্যন্ত কঠোর বিধি-নিষেধের প্রজ্ঞাপন জারি রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে জাতিসংঘে প্রস্তাব গৃহীত করোনা রোগীর চাপে চট্টগ্রাম মেডিকেলে সাধারণ রোগী ভর্তি বন্ধ করে দিয়েছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ
রবিবার, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ০৯:৫২ পূর্বাহ্ন

সুশান্তের আত্মহত্যার পরে সালমানকে বয়কট করার ডাক!

বিনোদন ডেস্ক, পিআরবি নিউজ
আপডেট বুধবার, ১৭ জুন, ২০২০

সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুতে স্তব্ধ গোটা বলিউড। জানা গিয়েছে বেশ কিছুদিন ধরে অবসাদে ভুগছিলেন তিনি। সুশান্তের আত্নহত্যার পিছনে বলিউডের নেপোটিজম এর বড় ভূমিকা রয়েছে,এমন অভিযোগ উঠছে। এরই মধ্যে সোশ্যাল মিডিয়ায় এক বিস্ফোরক পোস্ট করলেন অনুরাগ কাশ্যপের দাদা অভিনব কাশ্যপ।

অভিনবের দাবি সুশান্তকে আত্মহত্যা করতে বাধ্য করা হয়েছে। কেন অভিনেতা আত্মহত্যা করলেন সেই ব্যাপারেও তিনি পূর্ণাঙ্গ তদন্ত করা হোক বলে সরকারের কাছে দাবি করেছেন। এমনকি বলিউড সুপারস্টার সালমান খান ও তাঁর পরিবারের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন অভিনব কাশ্যপ। সালমান খান, সোহেল খান এবং আরবাজ খান তিনজনে মিলে তার ক্যারিয়ার নষ্ট করে দেওয়ার জন্য ব্যতিব্যস্ত হয়ে উঠেছেন বলেও দাবি করেছেন তিনি।

দাবাং ছবিটি সফল হওয়ার পর যখন দাবাং টু এর কাজ শুরু করেন তখন এই ঘটনার শুরু বলে জানিয়েছেন তিনি। এমনকি অভিযোগ তাঁদের কথা মতন না চললে খুন ও পরিবারের মহিলাদের ধর্ষণের হুমকিও দেয়া হয় অভিনবকে। অভিনব এই নিয়ে ফেসবুকে একটি লম্বা পোস্ট করেছেন।

তিনি লিখছেন, “সুশান্ত সিং রাজপুতের আত্মহত্যার এই ঘটনা আরো অনেক বড় সমস্যা কে সামনে এনে দিয়েছে যে গুলির মধ্যে দিয়ে আমরা অনেকেই যাচ্ছি। এমন কি হতে পারে যেটা মানুষকে আত্মহত্যা করতে বাধ্য করে?” তিনি আরো বলছেন বলিউডের বহু ট্যালেন্ট ম্যানেজার এবং ট্যালেন্ট ম্যানেজমেন্ট এজেন্সি আসলে শিল্পীদের জন্য মৃত্যুফাঁদ।

নিজের অভিজ্ঞতা শেয়ার করে অভিনব লিখছেন, “আমারও একই রকম অভিজ্ঞতা। প্রথমেই আমি দেখেছিলাম কিভাবে ব্যবহার করা হয় এবং মানসিকভাবে অত্যাচার করা হয়।” তিনি জানিয়েছেন সালমান খান দাবাং ছবির পরে তার ক্যারিয়ার নষ্ট করে দেওয়ার জন্য উঠে পড়ে লেগেছেন। সালমান একা নন। তাঁর ভাই সোহেল ও আরবাজ ও একই কাজ করেছেন।

অভিনয়ের ছবি ‘বেশরম’ মুক্তি পাওয়ার আগেই তাকে নিয়ে নেগেটিভ পাবলিসিটি করা হয় বলেও দাবি করেন তিনি। কিন্তু সুশান্তের মৃত্যুর পর বলিউডের এই ধরনের পক্ষপাতিত্বের বিরুদ্ধে লড়াই করার ডাক দিয়েছেন অভিনব কাশ্যপ।

পোষ্টের শেষে তিনি লিখেছেন, “এটা কোনো হুমকি নয়। এটা ওপেন চ্যালেঞ্জ। সুশান্ত সিং রাজপুত এগিয়ে গিয়েছেন এবং আমি আশা করি ও যেখানে আছে ভালো আছে। কিন্তু আমি এই ব্যাপারটা নিশ্চিত করব যে আর কোনো নিরীহ প্রাণ কে যেন এভাবে শেষ হতে না হয়। তাঁরা যেন সম্মান নিয়ে বলিউডে বেঁচে থাকতে পারেন। আমি আশা করি যাঁরা এই একই পরিস্থিতির মধ্য দিয়ে যাচ্ছেন তারা আমার এই পোস্ট শেয়ার করবেন।” অভিনব এমনকি সালমান খানকে বয়কট করার ডাক দিয়েছেন নেটিজেনদের কাছে।


এই বিভাগের আরো খবর
greengrocers

Categories

Archives