শিরোনাম
এসএমই ফাউন্ডেশনের ১০০’ কোটি টাকা ঋণের ৩৩ শতাংশ পেয়েছেন নারী উদ্যোক্তারা নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জের আঁতাতকরী বিএনপি নেতা নাসিরকে গনধোলাই দিলো কর্মীরা প্রধানমন্ত্রীর প্রণোদনা নিয়ে স্বজনপ্রীতি সহ্য করা হবে না : ওবায়দুল কাদের করোনায় ক্ষতিগ্রস্তদের সহায়তায় ৩২০০ কোটি টাকার নতুন প্রণোদনা প্যাকেজের ঘোষণা প্রধানমন্ত্রীর নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জের হাসেম ফুড পরিদর্শনে এসে বিএনপির দুই গ্রুপের সংঘর্ষ, পুলিশের লাঠিচার্জ চলমান লকডাউন শিথিল, ২৩ জুলাই থেকে ৫ আগস্ট পর্যন্ত কঠোর বিধি-নিষেধের প্রজ্ঞাপন জারি রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে জাতিসংঘে প্রস্তাব গৃহীত করোনা রোগীর চাপে চট্টগ্রাম মেডিকেলে সাধারণ রোগী ভর্তি বন্ধ করে দিয়েছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ নারায়ণগঞ্জে আইইডি ও বোমা তৈরীর সরঞ্জামসহ নব্য জেএমবির ২ সদস্য গ্রেফতার বাংলাদেশে ২০০ মিলিয়ন ইউরো বিনিয়োগে আগ্রহ প্রকাশ করেছে ইতালি : স্থানীয় সরকার মন্ত্রী
বুধবার, ০৪ অগাস্ট ২০২১, ০৫:২৩ পূর্বাহ্ন

‘হেফাজতে ইসলাম’ ইসলাম ধর্মকে কলঙ্কিত করেছে : হাক্কানি আলেম সমাজ

ডেস্ক রিপোর্ট, পিআরবি নিউজ
আপডেট বুধবার, ২১ এপ্রিল, ২০২১

হেফাজতে ইসলাম তাদের ধ্বংসাত্মক কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে ইসলামকে কলঙ্কিত করেছে বলে মন্তব্য করেছে হাক্কানি আলেম সমাজ। সেই সঙ্গে কতিপয় হেফাজত নেতাকে ইসলামে গর্হিত কর্মকাণ্ডের প্রশ্রয়দাতা কথিত আলেম নামের ধর্ম ব্যবসায়ী হিসেবে বর্ণনা করে তাদের পরিত্যাগ করতে দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানান তারা। বুধবার দুপুরে রাজধানীর সেগুনবাগিচায় ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাগর-রুনি মিলনায়তনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে হাক্কানি আলেম নেতৃবৃন্দ এ সব কথা বলেন।

হাক্কানি আলেম সমাজের পক্ষে মুফতি এহসানুল হক আল মোজাদ্দেদী লিখিত বক্তব্যে বলেন, ‘গণমাধ্যমের সাহায্যে আমরা প্রিয় দেশবাসীকে জানাতে চাই, হেফাজতে ইসলাম তাদের অভ্যুদয়ের শুরু থেকে যেভাবে পবিত্র ধর্ম ইসলামের ক্ষতি ও ইসলামকে একের পর এক কলঙ্কিত করে আসছে, এতে মুসলিম মিল্লাত অত্যন্ত ব্যথিত, দুঃখিত, লজ্জিত ও হতভম্ব। কারণ, মার্চ মাসের ২৫ থেকে ২৮ তারিখ যেভাবে তারা সরকারি ও বেসরকারি মূল্যবান স্থাপনা জ্বালিয়ে পুড়িয়ে দিয়েছে এবং মানুষের জানমালের অপূরণীয় ক্ষতি করেছে, তা ইসলাম কখনো সমর্থন করে না।’

তিনি বলেন, ‘সম্প্রতি হেফাজতের এক নেতা নারায়ণগঞ্জ রয়েল রিসোর্টে পর নারী নিয়ে যেভাবে আনন্দে মেতে উঠেছিল, তা অত্যন্ত লজ্জাকর বিষয়। বর্তমানে তিনিসহ যে সকল ধর্ম ব্যবসায়ী প্রশাসনের হাতে আটক আছেন, প্রত্যেকেই ইসলামদ্রোহী ও রাষ্ট্রদ্রোহ কর্মকাণ্ডে জড়িত।’ ‘বিভিন্ন কওমি মাদ্রাসার ছাত্রদের বলৎকারের চিত্র যেভাবে প্রকাশ পাচ্ছে, তা অত্যন্ত নিন্দনীয় ও জঘন্যতম অপরাধ’উল্লেখ করে বক্তব্যে বলা হয়, অতীত ইতিহাস এবং কোরআন ও হাদিসের মাধ্যমে প্রায় সকল মুসলিম অবগত যে, বলাৎকারের দরুণ কওম লুতকে মহান আল্লাহ ধ্বংস করেছেন, যার নিদর্শন এখনো বিরাজমান, যাকে আমরা ডেড সি হিসেবে জানি।

মুফতি ড. এ কে আব্দুল মমিন সিরাজী বলেন, ‘কেউ কেউ এ অপরাধীদের আটকের নিন্দা জানিয়ে বলেছেন তারা ধর্মীয় নেতা কিন্তু মূলত: তারা ধর্মের লেবাসধারী। তারা কুপমণ্ডকতার মাধ্যমে সাধারণ মানুষকে ধর্মের অপব্যাখ্যা দিয়ে ধর্মকে কলঙ্কিত করেছে এবং রাষ্ট্রীয় সম্পদ ধ্বংস করেছে। ইসলাম ও রাষ্ট্রীয় আইনে এ সমস্ত ধোঁকাবাজ, প্রতারক ও মিথ্যুকদের বিচার হওয়া প্রয়োজন।’ প্রশাসন তাদের অন্যায়, মিথ্যা ও প্রতারণার বিরুদ্ধে বিচারের মুখোমুখি করতে যেভাবে অপরাধীদের গ্রেফতার করার জন্য নিরলস প্রচেষ্টা চালাচ্ছে, সেই অভিযানকে আমরা সাধুবাদ জানাই উল্লেখ করে মুফতি এহসানুল হক বলেন, ‘ইসলামে গর্হিত কর্মকাণ্ডের প্রশ্রয়দাতা হেফাজতের কথিত আলেম নামের ধর্ম ব্যবসায়ীদের পরিত্যাগ করতে দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানাই।’ ড. কফিল উদ্দীন সরকার সালেহী, মাওলানা মহিউদ্দিন ফারুকীসহ মুফতি ও আলেমবৃন্দ এসময় উপস্থিত ছিলেন।


এই বিভাগের আরো খবর
greengrocers

Categories

Archives