শিরোনাম
আইডিইবি ইন্ডাস্ট্রিয়াল এন্ড এন্টারপ্রেনার্স ডেভেলপমেন্ট এসোসিয়েশন এর কমিটি গঠন ডিজিটাল বাংলাদেশের পরবর্তী ধাপ ক্যাশলেস সোসাইটি : জয় এসএমই ফাউন্ডেশনের ১০০’ কোটি টাকা ঋণের ৩৩ শতাংশ পেয়েছেন নারী উদ্যোক্তারা নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জের আঁতাতকরী বিএনপি নেতা নাসিরকে গনধোলাই দিলো কর্মীরা প্রধানমন্ত্রীর প্রণোদনা নিয়ে স্বজনপ্রীতি সহ্য করা হবে না : ওবায়দুল কাদের করোনায় ক্ষতিগ্রস্তদের সহায়তায় ৩২০০ কোটি টাকার নতুন প্রণোদনা প্যাকেজের ঘোষণা প্রধানমন্ত্রীর নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জের হাসেম ফুড পরিদর্শনে এসে বিএনপির দুই গ্রুপের সংঘর্ষ, পুলিশের লাঠিচার্জ চলমান লকডাউন শিথিল, ২৩ জুলাই থেকে ৫ আগস্ট পর্যন্ত কঠোর বিধি-নিষেধের প্রজ্ঞাপন জারি রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে জাতিসংঘে প্রস্তাব গৃহীত করোনা রোগীর চাপে চট্টগ্রাম মেডিকেলে সাধারণ রোগী ভর্তি বন্ধ করে দিয়েছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ
শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:১৪ পূর্বাহ্ন

না.গঞ্জের চাষাঢ়ায় আ’লীগ অফিসে বর্বরোচিত বোমা হামলার ২ দশক

মাহমুদ হাসান কচি, নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি
আপডেট বুধবার, ১৬ জুন, ২০২১

নারায়নগঞ্জের ইতিহাসে সবচেয়ে ভয়াবহ দিন গুলোর মধ্যে একটি দিন ১৬ই জুন, চাষাঢ়া বোমা হামলার ২০ বছর। ২০০১ সালের এই দিনে চাষাঢ়ায় আওয়ামী লীগ অফিসে বর্বরোচিত বোমা হামলায় প্রাণ হারায় ২০ জন। আহত হয়েছিলেন তৎকালীন ও বর্তমান এমপি শামীম ওসমানসহ অর্ধশতাধিক নেতাকর্মী।
ইতিহাসে এই ভয়াবহ স্মৃতি মনে করে আজো শিহরিত হয়ে উঠে এ অঞ্চলের মানুষ। অথচ ঘটনার দীর্ঘ দুই দশক পেরিয়ে গেলেও বিচার পায়নি নিহত ও আহতদের স্বজনরা। এ নিয়ে হতাশা ও ক্ষোভ রয়েছে তাদের।
এদিকে দিবসটিকে স্মরণ করে নানা কর্মসূচি পালন করছে আওয়ামী লীগ ও ১৬ জুনে নিহত ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারবর্গ।
২০০১ সালের ১৬ জুন রাত সোয়া ৮টায় নারায়ণগঞ্জের চাষাঢ়ায় অবস্থিত আওয়ামী লীগ অফিসে বর্বরোচিত এ বোমা হামলা চালানো হয়েছিল। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় ৯ জনের আর হাসপাতালে মারা যায় বাকি ১১ জন।
সেদিনের নৃশংস বোমা হামলার ঘটনায় নিহত হয়েছিলেন- শহর ছাত্রলীগের সভাপতি সাইদুল হাসান বাপ্পী, সহোদর সরকারি তোলারাম কলেজ ছাত্র-ছাত্রী সংসদের জিএস আকতার হোসেন ও সঙ্গীত শিল্পী মোশাররফ হোসেন মশু, সঙ্গীত শিল্পী নজরুল ইসলাম বাচ্চু, ফতুল্লা থানা আওয়ামী লীগের তৎকালীন যুগ্ম সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন ভাসানী, নারায়ণগঞ্জ থানা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এ বি এম নজরুল ইসলাম, স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা সাইদুর রহমান সবুজ মোল্লা, মহিলা আওয়ামী লীগ নেত্রী পলি বেগম, ছাত্রলীগ কর্মী স্বপন দাস, কবি শওকত হোসেন মোক্তার, পান সিগারেট বিক্রেতা হালিমা বেগম, সিদ্ধিরগঞ্জ ওয়ার্ড মেম্বর রাজিয়া বেগম, যুবলীগ কর্মী নিধু রাম বিশ্বাস, আব্দুস সাত্তার, আবু হানিফ, এনায়েতউল্লাহ স্বপন, আব্দুল আলীম, শুক্কুর আলী, স্বপন রায় ও অজ্ঞাত এক নারী।

শামীম ওসমানসহ আহত হন অর্ধশত ব্যক্তি। মহানগর আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি চন্দন শীল ও যুবলীগ কর্মী রতন দাস দুই পা হারিয়ে চিরতরে বরণ করেছে পঙ্গুত্ব।
বোমা হামলার পর দিন নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামীলীগের সাধারাণ সম্পাদক এড. খোকন সাহা বাদী হয়ে নারায়ণগঞ্জ সদর থানায় দু’টি মামলায় (একটি বিস্ফোরক, অন্যটি হত্যা) দায়ের করেন। চারদলীয় জোট সরকার ক্ষমতায় আসার পর মামলার তদন্ত কর্মকর্তা চূড়ান্ত রিপোর্ট দাখিল করেন। পরবর্তী সময়ে ২০০৮ সালে আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় এলে এ মামলাটি আবার চালু করা হয়। দুটি মামলায় ১৪ বছরে ৭বার মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পরিবর্তন এবং অষ্টমবারে ১৩ বছর পর ২০১৩ সালের ২ মে মামলার তদন্ত সংস্থা সিআইডি ছয়জনের নাম উল্লেখ করে আদালতে চার্জশিট দাখিল করে।
চার্জশিটভুক্ত ৬ জনের মধ্যে নারায়ণগঞ্জে ক্রসফায়ারে নিহত যুবদল ক্যাডার মমিনউল্লাহ ডেভিডের ভাই শাহাদাতউল্লাহ জুয়েল  গ্রেপ্তার রয়েছেন। হরকাতুল জিহাদ নেতা মুফতি আব্দুল হান্নানকে অন্যান্য মামলায় ফাঁসির আদেশ কার্যকর করা হয়েছে। পলাতক রয়েছেন ওবায়দুল্লাহ রহমান। ভারতের দিল্লী কারাগারে আটক রয়েছেন সহোদর আনিসুল মোরসালিন ও মুহিবুল মুত্তাকিন। আর জামিনে আছেন নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের ১২নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর শওকত হাশেম শকু।বর্তমানে আদালতে মামলাটির সাক্ষ্যগ্রহণ চলছে।
বোমা হামলার ঘটনায় করা মামলার বাদী নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামীলীগের সাধারাণ সম্পাদক এড. খোকন সাহা বলেন, ২০০১ সালের ১৬ জুন আওয়ামী লীগ অফিসে বোমা হামলার ঘটনা ঘটেছিল। ঘটনাস্থলে ১১ জন ও পরে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পর বাকি ৯ জনের মৃত্যু ঘটে। হামলায় আমাদের নেতা শামীম ওসমানসহ অর্ধশতাধিক নেতা সেদিন আহত হন। বাবু চন্দন শীল ও যুবলীগ কর্মী রতন দাস দুই পা হারিয়ে চিরতরে বরণ করেছে পঙ্গুত্ব। সেই সময়ে কেউ এই ঘটনায় মামলা করার জন্য প্রস্তুত ছিলো না। আমি সর্বপ্রথম এই মামলা করি। মামলা এখনো প্রক্রিয়াধীন আছে। আরও আগেই এই মামলার রায় হওয়ার কথা ছিলো। তবে করোনা মহামারির কারণে এই মামলা ঝুলে ছিলো। আমি আশা করছি আগামী ১৬জুনের আগে এই মামলা সঠিক বিচারের আওতায় আসবে।
এদিকে ১৬ জুন চাষাঢ়া আওয়ামী লীগ অফিসে বর্বরোচিত বোমা হামলার ২০ বছরে নারায়ণগঞ্জের আওয়ামী লীগ নানা কর্মসূচি হাতে নিয়েছে। সকালে নিহতদের প্রতি ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদনসহ দোয়া মাহফিল আর সন্ধ্যায় মোমবাতি প্রজ্জ্বলনের আয়োজন করার পদক্ষেপ নিয়েছে। এছাড়া এই দিনকে বরণ করতে এবং বড় করে অনুষ্ঠান করতে নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সাংসদ শামীম ওসমান দলীয় নেতাকর্মীদের প্রতি আহŸান করেছেন।


এই বিভাগের আরো খবর
greengrocers

Categories

Archives